ESR-Test

সুস্থ ও স্বাভাবিক জীবনের জন্য প্রতিটা মানুষেরই নিজের শরীর সম্বন্ধে একটা সাধারন জ্ঞান থাকা আবশ্যক। কোন অস্বাভাবিকতা বোঝার জন্য নিজেকে ডাক্তার হতে হয় না। সাধারন উপলব্ধিই মানুষকে বিপদের হাত থেকে রক্ষা করে। আমাদের আজকের বিষয় “এরিথ্রোসাইট সেডিমেন্টেশন রেট(ESR)”।

রক্ত ​​পরীক্ষার একটি অপরিহার্য অঙ্গ হলো ESR বা এরিথ্রোসাইট সেডিমেন্টেশন রেট। সাধারণতঃ ডাক্তার আপনার শরীরে কোন ধরনের প্রদাহ বা সংক্রমণ আছে কিনা তা বোঝার জন্য এই পরীক্ষার সুপারিশ করেন। যদিও মনে রাখতে হবে, ডাক্তারেরা একটি নির্দিষ্ট রোগ নির্ণয়ের জন্য শুধুমাত্র পরীক্ষার ফলাফলের ওপর নির্ভর করেন না। পাশাপাশি অন্যান্য ল্যাব পরীক্ষা, ক্লিনিকাল ফলাফল এবং ব্যক্তির স্বাস্থ্যের ইতিহাসও তারা পর্যবেক্ষণ করেন। বিশেষ কোন ইনফেকশন, ক্যান্সার বা অটোইমিউন রোগের মতো অন্তর্নিহিত চিকিৎসার ফলে সাধারণত শরীরে প্রদাহ দেখা দেয়। ESR পরীক্ষা ব্যবহার করে ডাক্তারেরা তার অবস্থাগুলো বিচার-বিশ্লেষণ করে এবং রুগী চিকিৎসায় কেমন সাড়া দিচ্ছে – তা বোঝার চেষ্টা করে।

ESR পরীক্ষা কত প্রকারঃ-

সাধারণত ESR পরীক্ষা দুই ধরনের।

১) ওয়েস্টারগ্রেন পদ্ধতিঃ-

এটি সবচেয়ে সাধারণ বিশ্বস্ত একটি ESR পদ্ধতি। রক্তের স্তর 200 মিলিমিটার (মিমি) না পৌঁছানো পর্যন্ত আপনার সংগৃহীত রক্ত একটি ওয়েস্টারগ্রেন-কাটজ টিউবে রাখা হয়। এক ঘন্টার জন্য ঘরের তাপমাত্রায় টিউবটিকে উল্লম্বভাবে সংরক্ষণ করা হয়। রক্তের মিশ্রণের উপরের অংশ এবং লোহিতকণিকা অবক্ষেপণের ওপরের অংশের মধ্যে দূরত্ব পরিমাপ করা হয়।

২) উইনট্রোব পদ্ধতি

উইনট্রোব পদ্ধতিটি ওয়েস্টারগ্রেন পদ্ধতির অনুরূপ, তবে ব্যবহৃত টিউবটি 100 মিমি লম্বা এবং পাতলা। এই পদ্ধতিটি ওয়েস্টারগ্রেন পদ্ধতির তুলনায় কম সংবেদনশীল। তাই সর্বত্র ESR-এর পরিমাপের জন্য ওয়েস্টারগ্রেন পদ্ধতি ব্যবহৃত হয়।

পরীক্ষা পদ্ধতিঃ-

সাধারণত একজন রুগীর প্রতিক্রিয়া নিরীক্ষণ করতে ESR পরীক্ষা ব্যবহার করা হয়।

প্রথমত, আপনার বাহুর শিরার ওপরের ত্বক পরিষ্কার করে একটি সূঁচ ফুটিয়ে সামান্য কিছুটা রক্ত শিরিঞ্চ দিয়ে টেনে নেওয়া হয়। তারপর অতি সতর্কতা অবলম্বন করে এই নমুনা রক্ত পরীক্ষাগারে পাঠানো হয়। ল্যাব টেকনিশিয়ানরা ওয়েস্টারগ্রেন পদ্ধতি ব্যবহার করে এরিথ্রোসাইট সেডিমেন্টেশন রেট বা ESR-এর স্বাভাবিক পরিসীমা গণনা করা হয়। এই পদ্ধতিতে, রক্তের নমুনাটি একটি ওয়েস্টারগ্রেন-কাটজ টিউবে সোডিয়াম সাইট্রেটের সাথে মিশ্রিত করে ঘরের তাপমাত্রায় এক ঘন্টার জন্য উলম্বভাবে সেট করা হয়। কিছুক্ষণ পর থেকেই লোহিত রক্তকণিকাগুলো ধীরে ধীরে নীচে জমা হয় আর ওপরে পরিষ্কার, হলুদাভ তরল ভেসে ওঠে, যা রক্তের প্লাজমা। এক ঘন্টা পরে, Red Blood Cell বা লোহিত রক্তকণিকাগুলি কতদূর স্থির হয়েছে তা পরিমাপ করা হয়। টিউবের শীর্ষে প্লাজমার পরিমাণের উপর নির্ভর করে পরীক্ষার ফলাফল। পরিমাপের একক মিলিমিটার প্রতি ঘন্টায় (মিমি/ঘন্টা)।

লোহিত রক্তকণিকা প্রদাহজনক অবস্থার লোকেদের মধ্যে দ্রুত হারে স্থির হয়, যা রক্তে প্রোটিনের সংখ্যা বৃদ্ধির সহায়ক। এই বৃদ্ধির ফলে লোহিত রক্তকণিকা একত্রে জমাট বাঁধে এবং দ্রুত নীচে স্থির হয়। এর থেকেই রুগীর শারীরিক অবস্থা সম্বন্ধে ডাক্তারেরা ইঙ্গিত পায় এবং নির্দিষ্ট চিকিৎসা পরিচালনা করেন।

আপনার ডাক্তার ESR পরীক্ষার মতো একই সময়ে আরো একটি সি-রিঅ্যাকটিভ প্রোটিন (CRP) পরীক্ষার আদেশ দিতে পারেন। CRP পরীক্ষাগুলো প্রদাহকেও পরিমাপ করে আপনার Coronary Artery Disease (CAD) বা করোনারি ধমনী রোগ এবং অন্যান্য কার্ডিওভাসকুলার রোগের ঝুঁকির পূর্বাভাস দিতেও সাহায্য করতে পারে।

এর সাথে সাথে আপনার ডাক্তার প্রদাহ বা সংক্রমণের অন্যান্য লক্ষণগুলি দেখতে একটি সম্পূর্ণ রক্ত ​​​​গণনা বা Complete Blood Count (CBC) পরীক্ষার আদেশ দিতে পারেন।

নমুনা রক্তের লোহিত কণিকা কি হারে টেস্ট টিউবের নীচে স্থির হয় তা পরিমাপ করার জন্য এরিথ্রোসাইট সেডিমেন্টেশন রেট বা ESR ​​পরীক্ষার প্রয়োজন। এই পরীক্ষাটি সাধারণতঃ প্রদাহ বা সংক্রমণ হতে পারে এমন কোন অবস্থা নির্ণয় করার জন্য করা হয়।

ESR Test

Offer Price:

₹117₹130
Book Health Test
  • Total no.of Tests - 1
  • Quick Turn Around Time
  • Reporting as per NABL ISO guidelines

ফলাফল কত আগে?

ফলাফলের সময় পরিবর্তিত হতে পারে।  ডাক্তারের চেম্বার বা ক্লিনিকে করা রক্ত পরীক্ষার ফলাফল আসতে বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই  কয়েকদিন সময় লেগে যায়। ফলাফল হাতে পাবার সাথে সাথে আপনার ডাক্তার পরবর্তী পদক্ষেপের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন।

ESR-এর পরীক্ষার স্বাভাবিক পরিসীমা
মহিলাঃ-

ESR-এর জন্য স্বাভাবিক রেফারেন্স পরিসীমা মহিলাদের জন্য গড়ে প্রায় 1-20 মিমি/ঘন্টা। ইউনিভার্সিটি অফ রচেস্টার মেডিকেল সেন্টারের মতে, ওয়েস্টারগ্রেন পদ্ধতি ব্যবহার করে গণনা করা হলে বিভিন্ন বয়সের মহিলাদের মধ্যে ESR-এর স্বাভাবিক পরিসর বিভিন্ন রকম।

পুরুষঃ-

ESR-এর জন্য স্বাভাবিক রেফারেন্স পরিসীমা পুরুষদের জন্য গড়ে প্রায় 1-13 মিমি/ঘন্টা। ইউনিভার্সিটি অফ রচেস্টার মেডিকেল সেন্টারের মতে, ওয়েস্টারগ্রেন পদ্ধতি ব্যবহার করে গণনা করা হলে বিভিন্ন বয়সের পুরুষদের মধ্যে ESR-এর স্বাভাবিক পরিসর বিভিন্ন রকম। 

নিম্নে ESR-এর একটি পরিসংখ্যান দেওয়া হল-

বয়স-সীমাESR-এর স্বাভাবিক পরিমাপ
২০-বছরের নিচের ছেলে-মেয়েরা০ – ১০ মিমি প্রতি ঘন্টায়
পুরুষ  ২০ – ৫০ বছর০ – ১৫ মিমি প্রতি ঘন্টায়
মহিলা  ২০ – ৫০ বছর০ – ২০ মিমি প্রতি ঘন্টায়
পুরুষ  ৫০ বছর উর্দ্ধে০ – ২০ মিমি প্রতি ঘন্টায়
মহিলা  ৫০ বছর উর্দ্ধে০ – ৩০ মিমি প্রতি ঘন্টায়

ESR মাত্রা অস্বাভাবিক হলে কি হবে?

উপরিউক্ত রেফারেন্স পরিসর থেকে ESR-এর অস্বাভাবিক মাত্রার তারতম্য অনুসারে বিভিন্ন রোগের প্রকোপ দেখা যায়।

ESR-এর নিম্ন স্তর

যদি ESR মাত্রা রেফারেন্স বা স্বাভাবিক সীমার চেয়ে কম হয়, তবে এটি নিম্নলিখিত রোগের সূচক হতে পারে:

  • লিউকোমিয়া
  • সিকেল সেল অ্যানিমিয়া
  • কনজেস্টিভ হার্ট ফেইলিউর
  • উচ্চ লোহিত রক্ত ​​কণিকা এবং সাদা রক্ত ​​কণিকার সংখ্যা
  • রক্তের পুরুত্ব বৃদ্ধি
  • প্রোটিন ফাইব্রিনোজেনের মাত্রা কম
  • উচ্চ মাত্রার ESR

যদি ESR মাত্রা রেফারেন্স বা স্বাভাবিক সীমার চেয়ে বেশি হয়, তবে এটি নিম্নলিখিত রোগের সূচক হতে পারে:

  • রক্তশূন্যতা
  • রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস
  • কিডনি রোগ
  • থাইরয়েড রোগ
  • লিম্ফোমা
  • লোহিত রক্ত কণিকায় অস্বাভাবিকতা
  • হাড়ের সংক্রমণ
  • যক্ষ্মা
  • পদ্ধতিগত সংক্রমণ
  • হার্ট ইনফেকশন

যদি আপনার পরীক্ষার রিপোর্টে ESR-এর মাত্রা 100 mm/h-এর বেশি হয়, তাহলে এটি নিম্নলিখিত ব্যাধিগুলির একটি ইঙ্গিত হতে পারে:

  • শ্বেত রক্তকণিকার ক্যান্সার (ওয়ালডেনস্ট্রমের ম্যাক্রোগ্লোবুলিনেমিয়া)
  • প্লাজমা সেল ক্যান্সার (একাধিক মাইলোমা)
  • রক্তনালীর প্রদাহ (অতি সংবেদনশীল ভাস্কুলাইটিস)
  • টেম্পোরাল আর্টারাইটিস

ডাক্তার ESR পরীক্ষার সুপারিশ করেন কখন?

আপনার যদি নিম্নলিখিত এক বা একাধিক লক্ষণ থাকে তবে আপনার ডাক্তার আপনাকে ESR পরীক্ষার সুপারিশ করতে পারেন:

  • জ্বর,
  • মাথাব্যথা,
  • রক্তশূন্যতা,
  • ক্ষুধা কমে যাওয়া,
  • কাঁধ বা ঘাড়ে ব্যথা,
  • জয়েন্টের দৃঢ়তা,
  • ওজন হ্রাস।

Why Choose Redcliffelabs?

Redcliffe Labs is India’s fastest growing diagnostics service provider having its home sample collection service in more than 60 cities with 20+ labs across India.

NABL accredited labs

Most affordable Prices

Free Home Sample Pickup

Painless Sample Collection

Get Reports In 24 hours

Free Consultation

রেডক্লিফ ল্যাবের অন্তর্ভুক্ত ডায়াগনোসিস সেন্টারগুলোতে অত্যাধুনিক যন্ত্রের মাধ্যমে বিভিন্ন রকম পরীক্ষা-নিরীক্ষা করা হয়। আপনি রেডক্লিফ ল্যাবগুলিতে সহজেই আপনার ESR পরীক্ষা করাতে পারেন। বুকিং-এর জন্য আপনি আপনার নিকটস্থ রেডক্লিফ কেন্দ্রে কল করতে পারেন কিংবা অফিসিয়াল ওয়েবসাইটের মাধ্যমে সরাসরি স্লট বুক করতে পারেন। উভয় ক্ষেত্রেই, রেডক্লিফ কেন্দ্র থেকে আপনার নমুনা সংগ্রহের জন্য ফ্লেবোটোমিস্ট বিনামূল্যে পৌঁচ্ছে যাবে আপনার দরজায়।

Vital Screening Package

Offer Price:

₹399₹1810
Book Your Test
  • Total no.of Tests - 81
  • Quick Turn Around Time
  • Reporting as per NABL ISO guidelines

ESR পরীক্ষার ফলাফল যখন অস্বাভাবিক

একটি অস্বাভাবিক ESR ফলাফল কোন নির্দিষ্ট রোগ নির্ণয় করে না। এটি কেবল আপনার শরীরের সম্ভাব্য প্রদাহ সনাক্ত করে এবং চিকিৎসার সম্ভাব্য পথ নির্দেশ করে।

কখনো কখনো পরীক্ষার মান অস্বাভাবিকভাবে শূন্যের কাছাকাছিও দেখা যায়। যেহেতু এই পরীক্ষাগুলি ভীষণ ওঠানামা করে,  তাই সঠিক মান বলা ক্ষেত্রবিশেষে কঠিন হয়ে পড়ে। এই পরীক্ষার ফলাফল নিম্নলিখিত কারণে প্রভাবিত হতে পারে –

  • বয়স জনিত
  • ঔষধ ব্যবহার
  • গর্ভাবস্থা
  • ঋতুচক্র

অস্বাভাবিক ESR পরীক্ষার ফলাফলের কিছু কারণ অন্যদের তুলনায় বেশি গুরুতর, কিন্তু এটি বিশাল উদ্বেগের বিষয় নয়। আপনার ESR পরীক্ষার ফলাফল অস্বাভাবিক হলে খুব বেশি চিন্তা না করা গুরুত্বপূর্ণ।

পরিবর্তে, আপনার লক্ষণগুলির কারণ কী তা খুঁজে বের করতে আপনার ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করুন। আপনার ESR ফলাফল খুব বেশি বা কম হলে তারা সাধারণত ফলো-আপ পরীক্ষার অর্ডার দেবে।

ঝুঁকিঃ-

ESR পরীক্ষার জন্য রক্ত দেওয়া খুবই সহজ এবং দ্রুত, সম্পূর্ণ হতে মাত্র কয়েক মিনিট সময় নেয়। পদ্ধতিটি নিরাপদ হলেও কিছু ঝুঁকি অবশ্যই আছে।

রুগীর বাহুতে সামান্য হুল ফোটার মতো একটি সূঁচ ফুটিয়ে সামান্য কিছুটা রক্ত শিরিঞ্চ দিয়ে টেনে নেওয়া হয়। এই সময়ে কিছু লোকের সামান্য রক্তপাত হতে পারে, বাহুতে হালকা ব্যথা কিংবা মাথা ঘোরা অনুভব করতে পারে। কখনো কখনো সংবেদনশীল ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে, এই ক্ষত স্থানটি জমাট রক্তের একটি শক্ত ফোলা (হেমাটোমা) আকার ধারণ করে ২/৩ দিন থাকতে পারে।

আমাদের এটাও মনে রাখা জরুরী, অস্বাভাবিক ESR সত্বেও সবসময় বিশাল কোন চিকিৎসার প্রয়োজন নাও থাকতে পারে। গর্ভাবস্থা, ঋতুস্রাব, বা বয়স বাড়ার কারণেও ESR-এর মাত্রা সামান্য উচ্চ হতে পারে। গর্ভনিরোধক ট্যাবলেট, কর্টিসোন, অ্যাসপিরিন এবং ভিটামিন এ-এর মতো কিছু ওষুধ গ্রহণকারী ব্যক্তিদেরও অস্বাভাবিক পরীক্ষার ফলাফল দেখা যায়। কোন কোন ক্ষেত্রে অ-চিকিৎসার কারণে বা অন্তর্নিহিত চিকিৎসার ফলে ESR-এর মাত্রা প্রভাবিত হয়। অতএব অযথা শঙ্কিত না হয়ে ডাক্তারের শরণাপন্ন হন। হয়তো সামান্য কিছু অ্যান্টিবায়োটিক কিংবা ননস্টেরয়েডাল অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি ড্রাগস আপনার উপশম ঘটাতে সক্ষম।

উপসংহারঃ-

ঘরের তাপমাত্রায় রাখলে আপনার রক্তের লোহিত কণিকা যে হারে স্থির হয় তাকে বলে ESR বা এরিথ্রোসাইট সেডিমেন্টেশন রেট। ESR এর অস্বাভাবিক মাত্রা আপনার শরীরে কোন না কোন ব্যাধির ইঙ্গিত। তাই জীবন নিয়ে কোন ছেলে-খেলা নয়, সংযত জীবন-যাপন করুন। প্রয়োজনে ডাক্তারের পরামর্শ নিন ও সুস্থ শরীরে দীর্ঘায়ু লাভ করুন।

Prime Full body Check Up

Offer Price:

₹399₹2010
Book Test Now
  • Total no.of Tests - 76
  • Quick Turn Around Time
  • Reporting as per NABL ISO guidelines
Share

Ms. Srujana is Managing Editor of Cogito137, one of India’s leading student-run science communication magazines. I have been working in scientific and medical writing and editing since 2018. I am also associated with the quality assurance team of scientific journal editing. I am majoring in Chemistry with a minor in Biology at IISER Kolkata.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Free Call back from our health advisor instantly